যমুনা সেতু কত কিলোমিটার । jamuna setu koto kilo?

আসসালামু আলাইকুম, যমুনা সেতু কত কিলোমিটার । jamuna setu koto kilo? পোস্ট আপনাদের স্বাগতম। যমুনা বহুমুখী সেতু বা বঙ্গবন্ধু সেতু নামেও পরিচিত। যমুনা সেতু বা বঙ্গবন্ধু সেতু বাংলাদেশের ২য় দীর্ঘতম সেতু। এটি যমুনা নদীর উপর একটি সড়ক ও রেল সেতু। আজকের পোস্টে আপনাদের জানাব বাংলাদেশের যমুনা সেতুর দৈর্ঘ্য কত কিলোমিটার।

বাংলাদেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের সবচেয়ে দীর্ঘতম সেতু হরো যমুন সেতু। টাঙ্গাইল ও সিরাজগঞ্জের যোগাযোগের অন্যতম যে সেতু সেটা হলো যমুনা সেতু। এই সেতুর ফলে পূর্ববঙ্গের সাথে পশ্চিমবঙ্গ এবং উত্তরবঙ্গের যাতায়ত ব্যবস্থা থেকে শুরু করে বিভিন্ন শিল্পকারখানা গড়ে উঠেছে। 
যমুনা সেতু কত কিলোমিটার
যমুনা সেতু কত কিলোমিটার

এবার আসুন আমরা জেনে নিই যমুনা সেতু কত কিলোমিটার লম্বা। jamuna setu koto kilo? এই সেতুটির দৈর্ঘ্য হলো ৪.৮ কিলোমিটার।

বাংলাদেশের যমুনা সেতু কত কিলোমিটার লম্বা?

বাংলাদেশের যমুনা সেতুর মোট দৈর্ঘ্য হলো ৪ দশমিক ৮ কিলোমিটার।

যমুনা সেতু বাংলাদেশের ২য় দীর্ঘতম সেতু। যার দৈর্ঘ্য হলো ৪.৮ কিলোমিটার এবং প্রস্থ্য ১৮.৫ মিটার। যমুনা সেতুন স্থানাঙ্ক ২৪°২৩′৫৫″ উত্তর ৮৯°৪৬′৪২″ পূর্ব । এর নির্মান কাজ শেষ হয় ১৯৯৮ সালে। এটি নির্মাণে ব্যয় হয় ৩ হাজার ৭৪৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা। সেতু চালু হয় ১৯৯৮ সালের জুন মাসে। এই সেতুটি পৃতিবীর ১১ তম এবং ৬ষ্ঠ দীর্ঘতম সেতু দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে।


আমাদের দেশের ৩টি বড় নদীর মধ্যে বৃহত্তম এবং পানি নির্গমনের দিক হতে পৃথিবীর ৫ম বৃহৎ নদী যমুনার ওপর এই সেতুটি নির্মিত হয়েছে। সেতুটি নির্মিত হওয়ার আগে, লোকেদের ধীরগতির ফেরি পরিষেবাগুলির উপর নির্ভর করতে হয়েছিল। এই সেতুটির নামকরন করা হয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাম অনুসারে। যমুনা সেতু পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চলের মধ্যে সংযোগ স্থাপন করেছে। সড়ক ও রেল পথে দ্রুত যাত্রী ও মালামাল পরিবহন ছাড়াও যমুনা সেতু বিদ্যুৎ ও প্রাকৃতিক গ্যাস সঞ্চালন এবং টেলিযোগাযোগ সমন্বিত করার সুযোগ করে দিয়েছে। টাঙ্গাইল থেকে সিরাজগঞ্জ পর্যন্ত বিস্তৃত যমুনা সেতু এশীয় মহাসড়ক ও আন্তঃএশীয় রেলপথের উপর অবস্থিত।

পূর্বাভাসিত দুর্যোগ এবং সম্ভাব্য ভূমিকম্প প্রতিরোধ করার জন্য, সেতুটি ৮০-৮৫ মিটার দীর্ঘ এবং ২.৫ মিটার এবং ৩.১৫ মিটার ব্যাসের স্টিলের স্তূপে সমর্থিত, যেগুলি শক্তিশালী হাইড্রোলিক হাতুড়ি দ্বারা চালিত হয়েছিল। যমুনা সেতুর মৌলিক বৈশিষ্ট্য হল দৈর্ঘ্য (প্রধান অংশ) ৪.৮ কিলোমিটার, প্রস্থ ১৮.৫ মিটার, স্প্যান ৪৯, রাস্তার লেন ৪।

প্রশ্ন ১ঃ যমুনা বঙ্গবন্ধু সেতু লম্বা কত?

উত্তরঃ যমনা বঙ্গবন্ধু ‍সেতু লম্বা হলো ৪.৮ কিলোমিটার।

প্রশ্ন ২ঃ যমুনা সেতুর প্রস্থ কত?

উত্তরঃ যমুনা সেতু ১৮.৫ মিটার প্রস্থ্য।

প্রশ্ন ৩ঃ যমুনা সেতু নির্মানে খরচ হয়েছে কত?

উত্তরঃ যমুনা সেতু নির্মানে খরচ হয়েছে ৩ হজার ৭৪৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা।

প্রশ্ন ৪ঃ যমুনা সেতুতে পাইল কত টি?

উত্তরঃ যমুনা সেতুতে পাইল ১২১ টি।

প্রশ্ন ৫ঃ যমুনা সেতুতে স্প্যান কয়টি?

উত্তরঃ যমুনা সেতুতে স্প্যান ৪৯ টি।

প্রশ্ন ৬ঃ যমুনা সেতুর স্থায়িত্ব কত বছর?

উত্তরঃ ধরা হয়েছে যমুনা সেতুর স্থায়িত্ব ১২০ বছর।

প্রশ্ন ৭ঃ যমুনা সেতু কে নির্মাণ করেন?

উত্তরঃ প্রথম ১৯৪৯ সালে যমুনা সেতু রাজনৈতিক পর্যায়ে মাওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী স্থাপনের উদ্যোগ নেন। কিন্তু সেসময় এই সেতুটি বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। কাজ শুরু হয় ১৯৯৪ সালের ১৫ অক্টোবর এবং ১৯৯৮ সালের ২৩ জুন যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

প্রশ্ন ৮ঃ যমুনা সেতু কারা তৈরি করেছে?

উত্তরঃ যমুনা বহুমুখী সেতুটি হুন্ডাই হেভি ইন্ডাস্ট্রিজ দ্বারা ৬৯৬ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মিত হয়েছিল। কিন্তু পুরো সেতু প্রকল্পে অজ্ঞাত কারণে ব্যয় হয়েছে ১.২৪ বিলিয়ন ডলার। ব্যয়টি IDA, ADB, OECD এবং বাংলাদেশ সরকার ভাগ করেছে।

আরও কিছু পড়ুন -
আমরা মনে করি, যমুনা সেতু কত কিলোমিটার (jamuna setu koto kilo) পোস্টটি পড়ে যমুনা বঙ্গবন্ধু সেতু সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেয়েছেন।

শেয়ার করুন:

No Comment
Add Comment

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন - অন্যথায় আপনার মন্তব্য গ্রহণ করা হবে না।

comment url